জোটের বার্তা দিয়ে দিল্লি ছাড়লেন মমতা, মোদি সবচেয়ে জনপ্রিয় দাবী শুভেন্দুর

0
99

মেট্রোলাইভ নিউজ ডেস্ক: দিন তিনেকের সফর সেরে কলকাতায় ফিরলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফেরার পথে বার্তা দিলেন “দেশের গণতন্ত্র বাঁচাতে বিরোধিদের একজোট হতে হবে। এই মুহুর্তে দেশ বাঁচানো একমাত্র লক্ষ্য। রাজধানী থেকে দিল্লি বিরোধী ঐক্যের বার্তা দিয়ে মমতা যখন কলকাতা ফিরছেন, তখন মমতার মুখ্যমন্ত্রীত্ব আটকাতে মরিয়া গেরুয়া শিবির। বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর কথায়, ” মুখ্যমন্ত্রী উপনির্বাচন চাইছেন। অথচ লোকাল ট্রেন চালাতে দিচ্ছেন না। তৃণমূলের মনে রাখা দরকার লকডাউনের কারণ দেখিয়ে যদি বিজেপির আন্দোলনের বাধা দিতে চায়। তাহলে উপনির্বাচন পিছিয়ে নিয়ে যাওয়াও আটকানো যাবে না”।

তিন দিনের দিল্লি সফরে সোনিয়া গান্ধী, রাহুল গান্ধী, অরবিন্দ কেজরিওয়াল, কানিমোঝি সহ একাধিক দলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন মমতা। সমস্ত বিরোধিদের এক ছাতার তলায় আনার কাজ জারি রাখতে প্রতি দু’মাস অন্তর দিল্লি যাত্রার কথা ঘোষণা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাল্টা শুভেন্দু অধিকারীর দাবী, মুখ্যমন্ত্রী দিল্লিতে গিয়ে যতই মিটিং করুক না কেন জনপ্রিয়তার নিরিখে সারা বিশ্বে এগিয়ে নরেন্দ্র মোদি। শুভেন্দুর এই কথা সঠিক। কিন্তু সাম্প্রতিক এক রিপোর্টে দেখা গিয়েছে গত কয়েকমাসে জনপ্রিয়তা কমতে শুরু করেছে নরেন্দ্র মোদির৷ তাই এই সময়েই একযোগে আক্রমণ শানাতে চাইছেন বিরোধিরা।

রাজনৈতিক মহলের ধারণা, মমতার দিল্লির পথের কাঁটা হয়ে দাঁড়াতে পারেন একা শুভেন্দু। তাই দিল্লির নেতাদের কাছে গুরুত্ব বেড়েছে তাঁর। শুভেন্দুর কথায় রেশ ধরে দেখা যাবে উত্তরাখণ্ডে নির্বাচন না করানোর আজুহাতে তিরাথ সিং রাওয়াতকে ইস্তফা দিতে হয়। মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেন পুস্কর সিং ধামী। আর তাতেই বোঝা যাচ্ছে কোভিডের অজুহাতে পশ্চিমবঙ্গেও উপনির্বাচন করাতে চাইছে না নির্বাচন কমিশন। এবিষয়ে শুভেন্দুর মন্তব্য, তৃণমূলের অনেক বিধায়ক আছে তাঁদের মধ্যেই কাউকে বেছে নেওয়া হোক।

২৪ শে’র দিকে তাকিয়ে বিরোধি জোটকে হাল্কাভাবে নিচ্ছেন না প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কারণ,যেভাবে সংসদে একের পর এক ইস্যুতে বিরোধিরা লাগাতার আন্দোলন করছেন তা সামাল দিতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে শাসক দলের নেতাদের। এখন বিরোধী জোটকে আটকাতে গেলে অন্য পরিকল্পনা নিতে হতে পারে মোদি সরকারকে৷ তবে সেই পরিকল্পনা কী হবে? বা প্রধানমন্ত্রী আদৌ কতটা সফল হবেন? তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে