জলমগ্ন বাঁকুড়ার বিস্তীর্ণ কৃষি জমি, মাথায় হাত চাষীদের

0
100

মেট্রোলাইভ নিউজডেস্কঃলাগাতার বৃষ্টিতে জলমগ্ন বাঁকুড়ার ইন্দাস, পাত্রসায়ের ও কোতলপুরের মতো একাধিক এলাকা। বিঘের পর বিঘে জমি জলমগ্ন হয়ে যাওয়ায় বেকায়দায় পড়েছেন চাষিরা। আর জলমগ্ন হওয়ার কারনে জমির শষ্য উতপাদনে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করছেন তাঁরা। এমন পরিস্থিতিতে চাষিদের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছে জেলা কৃষি দফতর।চলতি বছর নির্দিষ্ট সময়ের কিছু আগেই বর্ষার আগমন হয়েছে। সেইকারণেই বাঁকুড়ার অন্যতম কৃষি প্রধান ওই ব্লকের বিস্তীর্ণ এলাকায় আমন রোপণের কাজ শুরু হয়েছিল আগেভাগেই।

কৃষি দফতর সুত্রে জানা গিয়েছে, জুলাইয়ের মাঝামাঝি ওই এলাকার ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ কৃষিজমিতে আমন রোপণের কাজ প্রায় শেষ হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু জুলাইয়ের শেষ সপ্তাহে দুদিনের মেঘ ভাঙ্গা বৃষ্টির জেরে বেকায়দায় পড়তে হয় চাষিদের। কৃষি দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, বিগত কয়েকদিন গড়ে ১০০ মিলিমিটার থেকে ২৫৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে বাঁকুড়ার ইন্দাস থেকে পাত্রসায়েরের মতো ব্লকগুলিতে।

অতি অল্প সময়ে এই ভারী বৃষ্টিপাতের জেরে রীতিমতো জলমগ্ন হয়ে পড়ে কৃষিজমিগুলি। জেলা কৃষি দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ইন্দাস ব্লকেই প্রায় ১০০০ হেক্টরের বেশি আমন ধানে রোপন করেছিল চাষিরা। কিন্তু ধানের জমি জলমগ্ন হয়ে যাওয়ায় কপালে চিন্তার ভাঁজ চাষিদের। তবে খুশির খবর, জমা জল ইতিমধ্যেই দ্রুত হারে সেই নামতে শুরু করেছে। কোতুলপুর ব্লকে তেমন ভাবে কৃষিজমি জলমগ্ন হয়ে থাকার কোনও খবর নেই বলে কৃষি দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ চাষিদের সমস্তরকম আর্থিক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে কৃষি দফতর।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে