দলত্যাগ বিরোধী আইনে শিশির-সুনীলদের জবাব চাইল লোকসভার সচিবালয়

0
169

মেট্রোলাইভ নিউজ ডেস্ক: বিধানসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূল ত্যাগ করে বিজেপিতে যোগদান করেছেন দুই সাংসদ শিশির অধিকারী এবং সুনীল মন্ডল। দু’জনের সাংসদ সদস্যপদ খারিজের দাবীতে লোকসভা স্পিকার ওম বিড়লাকে চিঠি দেন লোকসভার সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার দলত্যাগ বিরোধী আইনে সুনীল মন্ডল এবং শিশির অধিকারীকে চিঠি দিল লোকসভার সচিবালয়। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সেই চিঠির জবাব দিতে বলা হয়েছে দু’জনকেই।

লোকসভার সচিবালয়ের তরফে জানতে চাওয়া হয়েছে কেন দলত্যাগ বিরোধী আইন অনুযায়ী ওই দুই সাংসদের সদস্যপদ খারিজ করা হবে না? যদিও এবিষয়ে সচিবালয় তরফে এখনও সেই চিঠি প্রকাশ্যে আনা হয়নি।

তৃণমূলের তরফে বারবার অভিযোগ তোলা হচ্ছিল বিধানসভার নির্বাচনের প্রচারে শিশির অধিকারীর মন্তব্য দলের পরিপন্থী ছিল না। দলের সঙ্গে কোনও যোগাযোগ রাখেননি তিনি। অন্যদিকে সুনীল মন্ডল বিজেপিতে যোগ দেওয়ায় তাঁকে তৃণমূল সাংসদ হিসাবে মেনে নেওয়া সম্ভব নয়। তাই দুই সাংসদের সদস্যপদ খারিজ করা উচিত৷

অন্যদিকে, একই ইস্যুতে তৃণমূলকে চাপে ফেলতে চাইছে বিজেপি। কৃষ্ণনগর উত্তরের আসনে বিজেপির টিকিটে জয়লাভের পর কীভাবে মুকুল রায় তৃণমূলে যোগদান করার পরেও বিধানসভার সদস্য থাকতে পারেন? প্রশ্ন তুলেছে বিজেপি। মুকুল রায়ের সদস্যপদ খারিজের দাবীতে স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে চিঠি দেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। শীঘ্রই সেবিষয়ে শুনানি শুরু হওয়ার কথা৷

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে