আপাতত সাংসদ পদে ইস্তফা দিচ্ছেন না বাবুল, নাড্ডা সাক্ষাৎ শেষ করে জানালেন বাবুল

0
477

মেট্রো লাইভ নিউজ ডেস্ক: রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়াচ্ছেন ঠিকই, কিন্তু আপাতত সাংসদ পদে ইস্তফা দিচ্ছেন না বাবুল। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার সঙ্গে বৈঠক শেষে নিজের এই সিদ্ধান্তের কথা জানালেন আসানসোল এর সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়ো। নিজের এই নতুন অবস্থান এর ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে বাবুল জানিয়েছেন, দলের কোনো রাজনৈতিক সভা-সমাবেশে তিনি থাকবেন না। কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচিতেও অংশ নেবেন না তিনি। কিছু বলার হলে দলের বাইরে থেকেই বলবেন। কিন্তু এতোকিছুর পরও কেন সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিতে পারছেন না বাবুল? এই প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে বিজেপি’র এই গায়ক সাংসদ জানান, এই মুহূর্তে সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিলেন আবার নতুন করে উপনির্বাচনে যেতে হবে। মা খরচ সাপেক্ষও বটে।

যা শুনে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা বলছেন, সন্দেহ নেই বাবুল বিজেপি ছাড়লে, এরাজ্যে গেরুয়া বাহিনীর জন্য তা খুবই অস্বস্তির কারণ হতে পারে। তাছাড়া সে ক্ষেত্রে আসানসোল আসনে আবারও লোকসভার উপনির্বাচন অনিবার্য হয়ে উঠবে। যা বিজেপির জন্য আরও চিন্তার। কারণ, বিধানসভা ভোটে আসানসোলের ৭ টি আসনের মধ্যে ৫ টিতেই হেরেছিল বিজেপি। অর্থাৎ উপ নির্বাচন হলে কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হবে পদ্মকে।

বাবুল সুপ্রিয় বলেছিলেন, চললাম। আলবিদা। তার পর দিলীপ ঘোষরা যাই মন্তব্য করুন, দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব যে তাঁকে এ ভাবে যেতে দিতে চান না, তা আগেই বোঝা যাচ্ছিল। বাবুলকে আরও একবার বোঝাতেই সোমবার সন্ধ্যায় নয়াদিল্লিতে তাঁর বাসভবনে বাবুলকে ডেকে পাঠান বিজেপি সভাপতি জগৎপ্রকাশ নাড্ডা। আর নাড্ডা সাক্ষাৎ শেষ করে বেরিয়ে বাবুল নিজের নতুন অবস্থান স্পষ্ট করে দেন।

স্বাভাবিক ভাবেই বাবুল নিজের নতুন অবস্থান ঘোষণা করতে না করতেই সরব হয়েছেন তৃণমূল মুখপাত্র কুনাল ঘোষ। কুণাল বলেন, ‘বলেইতো ছিলাম বাবুল নাটক করছেন। শুধু শুধু কথার এতো জাগলারি কেন!’

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে